জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতির কান্ড ,চকরিয়ার রাতারাতি ভুয়া কমিটি করে জালিয়াতির মাধ্যমে নৌকা পেতে মরিয়া, কেন্দ্রে অভিযোগ

Mohammad UllahMohammad Ullah
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  03:51 PM, 21 October 2021
জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতির কান্ড চকরিয়ার রাতারাতি ভুয়া কমিটি করে জালিয়াতির মাধ্যমে নৌকা পেতে মরিয়া, কেন্দ্রে অভিযোগ

জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতির কান্ড,

চকরিয়ার রাতারাতি ভুয়া কমিটি করে জালিয়াতির মাধ্যমে নৌকা পেতে মরিয়া, কেন্দ্রে অভিযোগ

চকরিয়া (কক্সবাজার)প্রতিনিধি।।

কক্সবাজারের চকরিয়ার মাতামুহুরী সাংগঠনিক উপজেলার পশ্চিম বড় ভেওলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ও নৌকা প্রতীক পেতে রাতারাতি ভুয়া কমিটি ও জালিয়াতির অভিযোগ উঠেছে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি রবিউল এহেছান লিটনের বিরুদ্ধে।
বর্তমান কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এসব জালিয়াতি বিষয়ে লিখিতভাবে অভিযোগ করেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে।

অভিযোগে জানা যায়, আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী নির্ধারণের জন্য কেন্দ্রীয় নির্দেশনা মোতাবেক গত ১৫ অক্টোবর দলের কার্যনির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সর্বসম্মতভাবে সিদ্ধান্ত হয় তিনজনের নাম জেলা কমিটির বরাবর প্রেরণ করার। সেই হিসেবে যথাক্রমে মাতামুহুরী সাংগঠনিক উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পশ্চিম বড় ভেওলা ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বাবলা, ইউনিয়নের সভাপতি গিয়াস উদ্দিন ও মাতামুহুরী সাংগঠনিক উপজেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক কাইছারুল হকের নামসহ সভার রেজুলেশন জেলা আওয়ামী লীগের কাছে প্রেরণ করা হয়। কিন্তু রবিউল এহেছান লিটন নামের এক ব্যক্তি তার মতো করে একটি ভুয়া কমিটি গঠনসহ তাকে একক প্রার্থী করা হয়েছে মর্মে রেজুলেশনসহ জেলা আওয়ামী লীগের কাছে জমা দেয়। জেলা আওয়ামী লীগও সেই তথ্য যাচাই না করে রবিউলের নাম কেন্দ্রের কাছে এক নাম্বারে পাঠিয়েছে।

জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতির কান্ড চকরিয়ার রাতারাতি ভুয়া কমিটি করে জালিয়াতির মাধ্যমে নৌকা পেতে মরিয়া, কেন্দ্রে অভিযোগ

পশ্চিম বড় ভেওলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি গিয়াস উদ্দিনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ইউনিয়নের কোন কমিটিতে তার নাম না থাকলেও তিনি অস্তিত্ববিহীন একটি রাতারাতি কমিটি গঠন করেন। এই অবৈধ কমিটির মাধ্যমে (রবিউল এহেছান লিটনকে) দলের একক প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দিয়ে রেজুলেশন তৈরি করে জেলা আওয়ামী লীগ বরাবর জমা দেওয়া হয়।

সভাপতি গিয়াসউদ্দিন অভিযোগ করে বলেন, ভুয়া কমিটি গঠন ও মিথ্যার আশ্রয় নেওয়া রবিউল এহেছান লিটন দলের কোন পদ-পদবীধারী নয়। এমনকি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্যও নয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট রবিউল এহেছান লিটন বলেন, যারা কেন্দ্রের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছে তারা পশ্চিম বড় ভেওলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কেউ নন, তাদের কমিটির কোনো বৈধতা নেই। ওই কমিটি গঠনের সময় জেলা আওয়ামী লীগের কাছ থেকে কোনো অনুমতি নেওয়া হয়নি।

রবিউল দাবি করেন, পশ্চিম বড় ভেওলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বৈধ কমিটির সভাপতি হচ্ছেন এরফান উদ্দিন চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল।
তবে মাতামুহুরী সাংগঠনিক আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম বাবলা ও সাধারণ সম্পাদক মহসিন বাবুলের দাবি, এরফান উদ্দিন চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল এর কমিটি একেবারেই ভুয়া। আর রবিউল এহেসান লিটন পশ্চিম বড় ভেওলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের দলের কোন সদস্যও নয়। ##

আপনার মতামত লিখুন :