ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল আনাচের ‘হ্যালো ছাত্রলীগ শেখ হাসিনা ফ্রী অক্সিজেন সেবা”

Mohammad UllahMohammad Ullah
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  12:47 PM, 25 July 2021

মারুফ আদনানের নির্দেশে চকরিয়ায়‘হ্যালো ছাত্রলীগ শেখ হাসিনা ফ্রী অক্সিজেন সেবা” দিচ্ছে ঃ আব্দুল্লাহ আল আনাচ



আমরা আসলে রাজনীতি করি সেটা কাদের জন্য? আমি আওয়ামী লীগের কথা বলছি না, আমি সকল রাজনৈতিক দলের কথা বলছি। নিশ্চয়ই উত্তর হবে সাধারণ মানুষদের জন্য কাজ করি। একটি সুন্দর রাষ্ট্র বিনির্মাণের জন্য আমরা রাজনীতি করি। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। আজকে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে একাই দেশটাকে টেনে নিতে হচ্ছে। আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, সেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগসহ অন্যান্য সহযোগী সংগঠনের প্রত্যেক নেতাকর্মীরা মৃত্যুকে পরোয়া না করে জেনে শুনে নিজের জীবন নিজের পরিবার তুচ্ছ করে এই সংকটকালীন মুহূর্তে আওয়ামী লীগ ও তার সংগঠনের হাজার হাজার নেতাকর্মী মানুষের পাশে রয়েছে। আওয়ামী পরিবারের সকল নেতাকর্মীরা দেশের মানুষের প্রতি তাদের আন্তরিকতা, ভালোবাসা, বিশ্বাস নিয়ে মানুষের পাশে থেকে কাজ করছে।

শেখ হাসিনা ফ্রী অক্সিজেন সেবার উদ্যোক্তা,চকরিয়া উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল আনাচ বলেন, করোনার শুরু থেকে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারা বাংলাদেশে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দিয়েছেন মানুষের পাশে থাকার জন্য। শেখ হাসিনার সেই নির্দেশনাকে বাস্তবায়নের জন্য সারা দেশের ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা কাজ করে যাচ্ছেন। সেই ধারাবাহিকতায় কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক মারুফ আদনান ভাইয়ের নির্দেশে আমরা চকরিয়া উপজেলায় গত ১২জুলাই হতে হ্যালো ছাত্রলীগ শেখ হাসিনা ফ্রী অক্সিজেন সেবার আওতায় মানুষের সেবাকে প্রাধান্য দিয়ে সর্বপ্রথম শেখ হাসিনা ফ্রী অক্সিজেন সেবার কাজক্রম শুরু করি এবং আমরাই তখন থেকে প্রথম বিনামূল্যে মানুষের বাসায় অক্সিজেন সেবা পৌঁছে দিচ্ছি। আমাদের সব থেকে বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে লকডাউনে এই সেবা কার্যক্রমের ধারাবাহিকতা বজায় রাখা। আমরা এই সেবা দিচ্ছি সম্পূর্ণ বিনামূল্যে। ডাক্তারের প্রেসক্রিপশন থাকা অবস্থায় সম্পূর্ণ বিনামূল্যে এই সেবাটি নিতে পারবেন রোগীরা।

 

চকরিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরাসহ সাধারণ শিক্ষার্থীরা আমাদের এই সেবামূলক কাজে অংশগ্রহণ করেছেন। আমাদের চকরিয়া-পেকুয়ার মাননীয় সাংসদ আলহাজ্ব জাফর আলম এমপি মহোদয় সহ সাবেক ছাত্রলীগের অনেক নেতাকর্মীরা আমাদের উৎসাহ দিয়েছেন এবং আমাদের এই মানবিক কাজে কিভাবে আমরা আরও বেশি মানুষকে সেবা দিতে পারবো সে ক্ষেত্রে তারা আমাদেরকে দিকনির্দেশনা দিচ্ছেন ও খোঁজখবর নিচ্ছেন। আমরা সেবা দিতে কোন ধরনের জামানত নেই না, এবং কোন ধরনের যাতায়াত ভাড়াও নেই না। এবং একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য আমাদের এই সেবার অক্সিজেন সিলিন্ডারটি মানুষের পাশে পৌঁছে দিয়ে আসছি। আমাদের এই সেবাটি একজন রোগী সর্বোচ্চ ১০ দিনের জন্য পাবে, অক্সিজেন শেষ হওয়ার পরে আমরা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে তা রিফিল করে অক্সিজেন সেবা দিয়ে যাব এবং আমাদের স্বেচ্ছাসেবক ভাইয়েরা রোগীদের বাসায় গিয়েও সেবা দিয়ে আসছে।

আপনার মতামত লিখুন :