চকরিয়ার লক্ষ্যারচরে পূর্বশত্রুতার জেরধরে হামলা, নারীসহ আহত-৫, মামলা দায়ের

Mohammad UllahMohammad Ullah
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  11:14 PM, 05 July 2021

চকরিয়া প্রতিনিধি:
চকরিয়ায় পূর্বশত্রুতার জেরধরে এক পরিবারের সদস্যদের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। হামলায় ৫জন নারী-পুরুষ সদস্য আহত হয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। গত ২৯জুন’২০২১ইং বিকাল ৪ ঘটিকায় উপজেলার লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের রোস্তম আলী চৌধুরী পাড়াস্থ জামে মসজিদের পশ্চিম পার্শ্বে চলাচল রাস্তার উপর ঘটেছে এ ঘটনা।
এনিয়ে ভূক্তভোগি পরিবারের লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের রোস্তম আলী চৌধুরী পাড়া গ্রামের মৃত সিরাজ মিয়ার পুত্র মহি উদ্দিন (৫০) বাদী হয়ে গত ২জুলাই থানায় মামলা (নং ২/২১জিআর ২৮২) দায়ের করেছেন। এতে আসামী করা হয়েছে একই এলাকার নুরুল কবিরের পুত্র মোঃ সাজ্জাদ হোসেন (৩০), মৃত শাহ্ আলমের পুত্র মোঃ শরীফ (৩২), মোঃ আলমগীর (৩৭), মোঃ শরীফ (৩২), মোঃ আলমগীর (৩৭), মৃত দলিলুর রহমানের পুত্র নুরুল কবির (৫৫), মৃত শাহ আলমের পুত্র আলী আকবর (৪৩), আলী আকবরের পুত্র মোঃ সাগর (২০), নুরুল কবিরের পুত্র মোঃ সাদ্দাম (২৭), মৃত নুর আহামদের পুত্র শাহ্ আলম (২৫), কবির হোছনের পুত্র মুরাদ (২৬), ইউসুফের ছেলে মোঃ সাজ্জাদ (২৭)সহ অজ্ঞাত আরো কয়েকজনকে।
হামলায় আহত হয়েছেন; সিরাজ মিয়ার পুত্র সাইফুল ইসলাম, মোজাম্মেল হক, মহি উদ্দিনের পুত্র আবদুল্লাহ আল মুহিত, আবদুস ছত্তারের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম, আবদুল হামিদের স্ত্রী তৈয়বী বেগম,

মামলার আর্জি সূত্রে জানাগেছে, লক্ষ্যারচর রোস্তম আলী চৌধুরীপাড়া জামে মসজিদে বাদীর ভাই পবিত্র আছরের নামাজ পড়ার জন্য যাওয়ার পথে অভিযুক্তরা পূর্বশত্রুতার আক্রোশে দেশীয় তৈরী অস্ত্রশস্ত্র ধারালো অস্ত্র শস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে আহত করে। তাকে বাচাঁতে আত্বীয় স্বজনরা এগিয়ে আসলে পরিবারের অপরাপর আরো ৪জনসহ ৫জনকে কুপিয়ে জখম করে। এক পর্যায়ে পরিবারের মহিলা সদস্যদের কাপড়-চোপড় এবং চুলের মুটি ধরিয়া টানা-হেঁচড়া করিয়া বিবস্ত্র করতঃ শ্লীলতাহানি করে। চারদিক হতে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে গিয়ে জখমীদেরকে মারাত্মক রক্তাক্ত জখম অবস্থায় উদ্ধার করে চকরিয়া সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেন। অভিযুক্ত আসামীরা মামলা তুলে নিতে বর্তমানেও হুমকি ধমকি অব্যাহত রেখেছে।
চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাকের মো: যুবায়ের বলেন, ঘটনার বিষয়ে বাদীর লিখিত এজাহার পাওয়ার পর তদন্ত করে থানায় মামলা হিসেবে লিপিবদ্ধ করা হয়েছে। এজাহার নামীয় আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :