চকরিয়ায় বাড়িতে ঢুকে স্কুল ছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ, ধর্ষক আটক

।। একাত্তর২৪.নেট।।।। একাত্তর২৪.নেট।।
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  04:37 PM, 08 November 2020

কক্সবাজারের চকরিয়ায় এক স্কুল ছাত্রীকে বাড়িতে ঢুকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর পূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ছাত্রীর শোরচিৎকারে স্থানীয় লোকজন-প্রতিবেশিরা এগিয়ে এসে ধর্ষক মো: এরশাদ (২৫)কে হাতে-নাতে ধরে ফেলে বাংলাদেশ পুলিশের ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে পুলিশের কাছে সোপর্দ্দ করেছে।
উপজেলার সুরাজপুর মানিকপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের উত্তর মানিকপুর গ্রামে গত ৭ নভেম্বর রাত সাড়ে ১০টার দিকে ঘটেছে এ ঘটনা।
ধর্ষক এরশাদ একই ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের সুরাজপুর মগপাড়া বিল গ্রামের নদীরপাড়া সংলগ্ন নুরুল হকের ছেলে বলে জানাগেছে।
ধর্ষিতা ছাত্রীর পরিবার ও স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ধর্ষক মো: এরশাদ ৯ম শ্রেণিতে পড়ুয়া স্কুল ছাত্রী (ছদ্মনাম ময়না-১২) কে মানিকপুর স্কুলে যাওয়া আসার সময় প্রেমের প্রস্তাতসহ প্রতিনিয়তই উত্যাক্ত করে আসছিল। ঘটনারদিন ছাত্রীর বাড়িতে মা-না থাকার সুযোগে খবর পেয়ে রাত অনুমানিক ১০.৩০ ঘটিকার সময় বাড়িতে ঢুকে স্কুল ছাত্রীকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে ছাত্রী চিৎকার শুরু করলে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে ধর্ষক এরশাদকে হাতে-নাতে ধরে ফেলে।
স্থানীয় মানিকপুর ১নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য জাহেদুল ইসলাম জানান, স্কুল ছাত্রী ধর্ষনের বিষয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে অবহিত করার পরও তিনি কোন আইনী পদক্ষেপ গ্রহণ করেননি।

ফলে তিনি বাংলাদেশ পুলিশের ৯৯৯ নাম্বারে ফোন করলে চকরিয়া থানার ওসি শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের এর নির্দেশে উপপরিদর্শক মো: কামাল হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ৮নভেম্বর ভোরে ঘটনাস্থলে পৌছে ধর্ষিতাকে উদ্ধার ও ধর্ষক এরশাদকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন।
চকরিয়া থানার ওসি শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, ধর্ষিতা স্কুল ছাত্রীকে পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে এবং ধর্ষণে জড়িত যুবককে পুলিশ আটক করেছে। তার বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে থানায় মামলা রুজু হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :